মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০২৪, ৭ শ্রাবণ ১৪৩১

নিজস্ব প্রতিবেদক :

প্রকাশিত: ১৩:১৯, ১০ জুলাই ২০২৪

কোটা বাতিলের দাবিতে

আপিল বিভাগকে অমান্য করে আন্দোলন করছে শিক্ষার্থীরা 

আপিল বিভাগকে অমান্য করে আন্দোলন করছে শিক্ষার্থীরা 
সংগৃহীত

বাংলাদেশে মুক্তিযোদ্ধা কোটা হাইকোর্টের দেওয়া রায়ের ওপর আপিল বিভাগের আদেশ প্রত্যাখ্যান করেছে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা। তারা এই চলমান আনদোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন।

বুধবার (১০ জুলাই) দুপুরে রাজধানীর সায়েন্সল্যাব মোড় অবরোধ করা শিক্ষার্থীদের পক্ষে এমন ঘোষণা দেন বৈষম্যবিরোধী আন্দোলন ঢাকা কলেজ শাখার সমন্বয়ক নাজমুল হাসান।

তিনি বলেন, আদালতের প্রতি আমাদের সম্মান আছে। তবে আমরা স্থায়ী সমাধান চাই। কোটা নিয়ে বারবার টালবাহানা দেখতে চাই না। সব গ্রেডে অযৌক্তিক এবং বৈষম্যমূলক কোটা বাতিল করে সংবিধানে উল্লেখিত অনগ্রসর গোষ্ঠীর জন্য কোটাকে ন্যূনতম মাত্রায় এনে সংসদে আইন পাস করতে হবে। আমরা পড়ার টেবিলে ফিরে যেতে চাই। দাবি মেনে নেওয়া না পর্যন্ত আন্দোলন চলবে।

প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বে পাঁচ বিচারপতির আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দেন। এ আদেশের ফলে মুক্তিযোদ্ধা কোটা বাতিল করে ২০১৮ সালে সরকারের জারি করা পরিপত্র বহাল থাকছে বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।

এ সময় শিক্ষার্থীদের ক্লাসে ফেরার আহবান জানান প্রধান বিচারপতি। তিনি বলেন, যারা আন্দোলন করছে, বিষয়টি অ্যাপরিসিয়েট করার মতো না। তাদের মনেও ক্ষোভ আছে। তবে রাস্তায় আন্দোলন করে রায় পরিবর্তন করা যায় না। আমরাও তো মানুষ, বিভিন্ন দিকে কথা বার্তা হচ্ছে, কিন্তু বিষয়টা সলভ করতে হবে।

জনপ্রিয়