শনিবার ১৮ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৫:০১, ২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

হাঁটার যত উপকারীতা

হাঁটার যত উপকারীতা

ব্যস্ত জীবনে আমরা প্রায়ই স্বাস্থ্যকে উপেক্ষা করি। কিন্তু একটু চেষ্টা করলেই আমরা আমাদের স্বাস্থ্যের উন্নতি করতে পারি। নিয়মিত হাঁটা এমন একটি অভ্যাস, যা আপনাকে সুস্থ ও তরুণ রাখতে সাহায্য করতে পারে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, প্রতিদিন ১০ হাজার পা হাঁটতে পারলে শরীরের অনেক ভাল পরিবর্তন ঘটতে পারে। যেমন- এই অভ্যেস ওজন কমাতে সাহায্য করে। হাঁটা ক্যালোরি বার্ন করার একটি দুর্দান্ত উপায়। প্রতিদিন ১০ হাজার পা হাঁটলে আপনি ৫০০-১০০০ ক্যালোরি বার্ন করতে পারেন। এটি ওজন কমাতে সাহায্য করে।

হাঁটার অভ্যেস হৃদস্পন্দন ও রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখে, যা হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়। ডায়াবেটিস প্রতিরোধে সাহায্য করে হাঁটার অভ্যেস। নিয়মিত হাঁটা রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে, যা ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমায়। হাড় এবং পেশী শক্তিশালী করতে পারে এই অভ্যেস। এছাড়া অস্টিওপোরোসিসের মতো রোগের ঝুঁকিও কমায়।

হাঁটার অভ্যেস মানসিক চাপ ও দুশ্চিন্তা কমায়। মনকে শান্ত করে। হাঁটলে ভাল ঘুম হয়। মস্তিষ্কের স্বাস্থ্যের উন্নতি হতে পারে রোজ হাঁটার অভ্যেস থাকলে। হাঁটা স্মৃতিশক্তি, একাগ্রতা বাড়ায়। মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করতে পারে।

আপনি যদি কখনও ব্যায়াম না করেন, তবে ধীরে ধীরে শুরু করুন। প্রথমে টার্গেট করুন ৫ হাজার পা হাঁটার। ধীরে ধীরে ১০ হাজার পা হাঁটার চেষ্টা করুন। লিফটের পরিবর্তে সিঁড়ি ব্যবহার করুন রোজ অন্তত একবার। আজকাল অনেক অ্যাপ এবং গ্যাজেট রয়েছে যা আপনার ওয়ার্ক আউট ট্র্যাক করে। এগুলো ব্যবহার করলে আপনি আপনার লক্ষ্য অর্জন করতে পারবেন।

জনপ্রিয়